১৭ই ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং ৫ই ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
বগুড়ায় বন্ধুকে দিয়ে স্ত্রীকে ধ’র্ষণের ঘটনায় স্বামী... রাষ্ট্রচিন্তা পরিবর্তনের প্রত্যয়ে লিটন তালুকদারের... তালতলীতে সরকারী কলেজ শিক্ষককে কুপিয়ে আহত; প্রতিবাদে... সাপাহার সীমান্তে অপরাধ নির্মূলে বিজিবি বিএসএফ’র... চিলমারীতে যত্ন প্রকল্পের অর্থ বিতরন

রোগ সারাতে শরীরে ফলের রসের ইনজেকশন, তারপর.

 আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ সমকালনিউজ২৪
রোগ সারাতে শরীরে ফলের রসের ইনজেকশন, তারপর.

মৃতপ্রায় অবস্থায় এক নারীকে ভর্তি করা হয় হাসপাতালের ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে (আইসিইউ)। চিকিৎসার জন্য যার আধুনিক পদ্ধতিতে বিশ্বাস নেই। প্রাচীন প্রচলিত ঘরোয়া পদ্ধতিই তার পছন্দ রোগ মুক্তির উপায় হিসেবে। কিন্তু সেই পদ্ধতি প্রয়োগ করতে গিয়েই জীবন বিপন্ন করে বসেছিলেন চীনের এক নারী। ৫১ বছরের ওই নারীর নাম জেং বলে জানা গিয়েছে।

সংবাদ সূত্রের খবর, জেং মনে করতেন ফলের রস স্বাস্থ্যের জন্য ভাল হলেও সরাসরি রক্তে মিশলে তা আরও ভাল কাজ করতে পারে। তাই প্রায় ২০ ধরনের ফলের রসের একটি মিশ্রণ তৈরি করেন তিনি। পান না করে, সেই ফলের রস সরাসরি সিরিঞ্জের মধ্যে ভরে ইনজেকশন নেন তিনি। কিন্তু তার ফল হয় মারাত্মক। অসম্ভব চুলকানি শুরু হয় সারা গায়ে। মারাত্মক বেড়ে যায় শরীরের তাপমাত্রাও। মৃতপ্রায় অবস্থায় ওই নারীকে ভর্তি করা হয় হাসপাতালের ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিট (আইসিইউ)-এ।

চীনের হুনান প্রদেশের যিয়াংগান ইউনিভার্সিটি হাসপাতালের ডাক্তাররা বলছেন, এর ফলে ওই মহিলার যকৃত, কিডনি, হৃদপিণ্ড এবং ফুসফুস মারাত্মক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।
এই ঘটনা সামনে আসতেই শোরগোল পড়ে যায় চীনা সামাজিক মাধ্যমে। অনেকেই বলতে থাকেন, চীনে বহু মানুষের কাছেই যে এখনও স্বাস্থ্য রক্ষার নিরাপদ উপায় সম্পর্কে সঠিক তথ্য নেই, এই ঘটনায় তা প্রমাণিত। আধুনিক চিকিৎসার ব্যাপারে মানুষকে আরও বেশি করে জানানোর প্রয়োজনীয়তার কথাও বলেন অনেকে। এদিকে, হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়ে নিজের বাড়িতে ফিরে গেছেন জেং। আনন্দবাজার।

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
আন্তর্জাতিক বিভাগের আলোচিত
ওপরে