২৩শে জুলাই, ২০১৯ ইং ৮ই শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
রাজশাহীর চারঘাটে ছেলেধরা সন্দেহে ৫ এনজিও কর্মীকে... এসএমপির ১৬ নারী কনস্টেবলকে কম্পিউটার প্রশিক্ষণ প্রদান দুর্গাপুরে ছেলেধরা সন্দেহে আটক – ১ কলারোয়ার বাঁটরায় বর্ষা মৌসুমের টমেটো চাষে আগ্রহ বাড়ছে... রিফাত হত্যা : রিশান ফরাজীর স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ৩ জার্মান সাংবাদিককে পিটিয়ে জখম

 অনলাইন ডেস্ক। সমকাল নিউজ ২৪

উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের উত্তেজিত রোহিঙ্গাদের হামলায় ৩ জার্মান সাংবাদিক ও পুলিশসহ ৬ জন আহত হয়েছেন। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে কুতুপালং ক্যাম্প-১ ইস্ট এর লম্বাশিয়া বাজারে এই ঘটনা ঘটে। আহতদের মধ্যে তিনজন জার্মান সাংবাদিক ও একজন বাংলাদেশি দো-ভাষী, একজন পুলিশ ও একজন গাড়ির ড্রাইভার রয়েছেন।

আহতরা হলেন- জার্মান সংবাদিক ইয়োচো লিওলি (৪৪), এস্ট্যাটিউ এপল (৪৯) ও গ্রান্ডস স্ট্যাফু (৬১)। তাদের বাংলাদেশি দো-ভাষী মো. সিহাবউদ্দিন (৪১) ও গাড়ির চালক নবীউল আলম (৩০)। পুলিশ সদস্য জাকির হোসেন (৩৩)।

কুতুপালং মধুরছড়া পুলিশের ইনচার্জ (ওসি) মো. ইয়াছিন জানান, জার্মান সাংবাদিকরা ক্যাম্প-৪ এক্সটেনশন থেকে সংবাদ সংগ্রহ শেষ ফেরার পথে লম্বাশিয়ায় বাজারে এক রোহিঙ্গা পরিবারকে জামা কাপড় কিনে দিচ্ছিলেন। এই সময় রোহিঙ্গারা অপহরণকারী বলে গুজব ছড়িয়ে সাংবাদিকদের উপর হামলা চালায়। হামলায় রোহিঙ্গারা বিদেশিদের ব্যবহৃত গাড়ি ভাঙচুর করে। হামলাকারীরা ক্যামেরা, তাদের কাগজপত্র (পাসপোর্ট) ও সাথে থাকা জিনিসপত্র নিয়ে যায়।

পরে আহতদের উদ্ধার করে সেনা ক্যাম্পে হাসপাতালে নিয়ে এসে চিকিৎসা দেওয়া হয় এবং গাড়িটি উদ্ধার করে উখিয়া থানায় নিয়ে আসেন পুলিশের সদস্যরা।

কুতুপালং ক্যাম্পের রোহিঙ্গা নেতা মোহাম্মদ নুর জানান, জার্মান সাংবাদিকেরা একটি রোহিঙ্গা পরিবারকে কাপড় কিনে দেওয়ার জন্য গাড়িতে উঠালে রোহিঙ্গারা বিষয়টি ভিন্ন ভাবে নিয়ে অপহরণকারী মনে করে তাদের উপর হামলা চালায়। এতে ৩ জন বিদেশী সাংবাদিক আহত হয় ।

উখিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আবুল খায়ের বলেন, জার্মান সাংবাদিকদের উপর হামলার ঘটনায় জড়িতদের ধরতে ও মালামাল উদ্ধারে পুলিশের পাশাপাশি সেনা, বিজিবি, র‌্যাব এক সাথে অভিযান চালাচ্ছে। তবে এখনো পর্যন্ত কাউকে আটক বা সনাক্ত করা যায়নি।

Print Friendly, PDF & Email

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
বিশেষ প্রতিবেদন বিভাগের সর্বশেষ
ওপরে