২৫শে মার্চ, ২০১৯ ইং ১১ই চৈত্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
হাটহাজারীতে এক কিশোরীকে গনধর্ষন ঠাকুরগাঁওয়ে ভুল অপারেশনে প্রাণ গেল তৃতীয় শ্রেণীর... স্বাধীনতা যুদ্ধে বীর শহীদের স্বরনে মোংলা ইপিজেড কর্তৃক... ডিনস এ্যাওয়ার্ড পেলেন রাবির দুই শিক্ষক রাবিতে পাঁচ দিনব্যাপী শিল্পকর্ম প্রদর্শনী শুরু

লোকালয়ের মধ্যে অবৈধ ডগ ইয়াড’র হামারের শব্দে আৎকে ওঠে শিশু ও বৃদ্ধরা।

 সুজন মোল্লা, বানারীপাড়া প্রতিনিধি। সমকাল নিউজ ২৪

জেলার বানারীপাড়া উপজেলায় প্রতিদিন অবৈধ ডগ ইয়ার্ডের হামারের বিকট শব্দে আৎকে ওঠে শিশু থেকে বৃদ্ধ। লেখাপড়া ও খেলাধুলা করার জায়গায় শব্দ দূষন,জনস্বাস্থ্য ও জনস্বার্থ বিঘ্নিত হচ্ছে বলে উদয়কাঠি ইউনিয়নের তেতলা (বগাইবাড়ী) গ্রামের মো. সোলাইমান ব্যাপারী এমন অভিযোগ করেন। তিনি এর আগেও বানারীপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. শরিফুল ইসলাম (সাবেক)’র কাছে অপরিকল্পিত ডগ ইয়ার্ড নির্মাণে ট্রান্সফর্মার না দেওয়া প্রসঙ্গে অভিযোগ করেন। অভিযোগ পেয়ে ইউএনও মো. শরিফুল ইসলাম সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নের ভূমি সহকারী কর্মকর্তাকে সরেজমিন তদন্ত করে প্রতিবেদন দেয়ার নির্দেশ দেন।

ভূমি সহকারী কর্মকর্তা তার তদন্তে উল্লেখ করেন,ডগ ইয়ার্ড স্থাপনের পার্শ্ববর্তী এলাকায় ২০টি পরিবারে প্রায় ২ শত লোকের বসবাস এবং সেখানে প্রতিনিয়ত ছোট ছোট ছেলে মেয়েরা নিয়মিত খেলাধুলা করে। সেখানে ট্রান্সফর্মার স্থাপন করা হলে বড় ধরণের দূর্ঘটনাও ঘটতে পারে বলেও প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়।

পরে নির্বাহী কর্মকর্তা মো. শরিফুল ইসলাম অভিযোগ এবং ভূমি সহকারী কর্মকর্তার প্রতিবেদন পর্যলোচনা করে সরেজমিন তদন্ত পূর্বক উক্ত স্থানের পরিবেশ,জনস্বাস্থ্য ও জননিরাপত্তা যাতে বিঘ্নিত না হয় সে ব্যাপারে ব্যবস্থ্য গ্রহনে আঞ্চলিক পরিচালক পরিবেশ অধিদপ্তর বরিশাল ও এজিএম পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-০২ বানারীপাড়া এরিয়া অফিস বরিশালকে গত বছরের ২৮ আগস্ট নিজ স্বাক্ষরিত এক পরিপত্রে অনুরোধ জানান।

সোলাইমান ব্যাপারীর দেয়া অবৈধভাবে পরিচালিত মেটাল ওয়ার্কশপের কার্যক্রম বন্ধ করণের এক অভিযোগের প্রেক্ষিতে পরিবেশ অধিদপ্তর বরিশালের মহাপরিচালক মো. আবদুল হালিম স্বাক্ষরিত এক পরিপত্রে ৪ ফেব্রæয়াির মো. মহসিন হোসেন (প্রোপাইটর মেসার্স মা বাবার দোয়া ক্ষুদ্র ডগ ইয়ার্ডকে) লিখিতভাবে জানান, উক্ত ডগ ইয়ার্ড পরিবেশগত ছাড়পত্রের শর্ত লংঘন করে নতুন ধাতব নৌযান তৈরি করে আসছে। অভিযোগের বিষয়ে শুনানিতে অংশ গ্রহনের জন্য বলা হলেও আপনি যথা সময়ে উপস্থিত হননি।

পরিবেশগত ছাড়পত্রের শর্তলংঘন,জনস্বাস্থ্য ও জনস্বার্থ রক্ষার্থে প্রতিষ্ঠানের অনুকুলে দেয়া পরিবেশগত ছাড়পত্র কেন বাতিল করা হবেনা তা ১৩ ফেব্রুয়ারির মধ্যে সুস্পষ্ট কারণ দর্শাতে বলা হয়। নির্দেশ পালনে ব্যর্থ হলে বাংলাদেশ পরিবেশ সংরক্ষণ আইন-১৯৯৫ (সংশোধিত-২০১০)’র সংশ্লিষ্ট ধারা মোতাবেক ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে বলেও ওই পরিপত্রে উল্লেখ করা হয়।

এদিকে সরেজমিনে দেখা গেছে ডগ ইয়ার্ডের চারপাশে টিন দিয়ে বেড়া দিয়ে প্রায় দেড়শত ফুট লম্বা নতুন নৌযান তৈরি করা হচ্ছে। সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত হামার ও হাঁতুরীর শব্দে আৎকে উঠছে শিশু ও বৃদ্ধরা। খেলার মাঠে পরিকল্পনাহীণভাবে ডগ ইয়ার্ড নির্মাণ করায় খেলাধুলা থেকে বঞ্চিত হচ্ছ শিশু,কিশোর ও যুবকরা।

এ বিষয়ে ডগ ইয়ার্ডের মালিক মো. মহসিন হোসেন জানান,পরিবেশ অধিদপ্তর থেকে কারণ দর্শানোর নোটিশ প্রদানের পরে তার জবাব দেয়া হয়েছে। বর্তমানে পরিবেশ অধিদপ্তর বরিশাল থেকে প্রতিষ্ঠানের চারপাশে ফোমদিয়ে আটকিয়ে কাজ করার জন্য বলা হয়েছে এবং কাজ করার সময় সীমা নির্ধারণ করে দিয়েছেন।

Print Friendly, PDF & Email

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
বরিশাল বিভাগের সর্বশেষ
বরিশাল বিভাগের আলোচিত
ওপরে