২৩শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ইং ১১ই ফাল্গুন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
বরিশাল শেবাচিমে ময়লার স্তূপে মিললো ২২ অপরিণত শিশুর... স্বামীর লাশ ওয়ারড্রবে রেখে অফিস করলেন স্ত্রী! ঐক্যফ্রন্টকে গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর দাওয়াত চাকরিতে প্রবেশের বয়স ৩৫ করার দাবিতে মানববন্ধন বন্য হাতির আক্রমণে নিহত জাসদ নেতা সাইমুন কনক

শাহ আব্দুর রহিম (রহ:) মাজার নিয়ে অপপ্রচারকারীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের দাবীতে জেলা প্রশাসক বরাবরে স্মারকলিপি প্রদান

  সমকাল নিউজ ২৪

সিলেট জেলার দক্ষিণ সুরমা উপজেলার ৬নং লালাবাজার ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের বেতসুন্দি ফকিরোগাঁওস্থ হযরত শাহ আব্দুর রহিম (রহ:) মাজার পরিচালনা কমিটি নিয়ে অপপ্রচারকারীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের দাবীতে গ্রামবাসী ও মাজার পরিচালনা কমিটির নেতৃবৃন্দ সিলেটের জেলা প্রশাসক বরাবরে এক স্মারকলিপি প্রদান করেছেন। গত বৃহস্পতিবার দুপুরে সিলেটের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) সন্দ্বীপ কুমার সিংহ এর হাতে স্মারকলিপি প্রদান করেন বেতসুন্দি ফকিরোগাঁও গ্রামবাসী ও মাজার পরিচালনা কমিটির নেতৃবৃন্দ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ ওতির আলী, হাজী মোঃ চান মিয়া, হাজী মকবুল হোসেন, মাজার পরিচালনা কমিটির সদস্য আলকাছ আলী, সাধারণ সম্পাদক ফয়জুল ইসলাম, কোষাধ্যক্ষ মুশাহিদ আহমদ রনি, সোহেল রানা, হাবিবুর রহমান, তজম্মুল আলী, জুনাব আলী, মনির আলী, আব্দুস শহীদ, এনাম মিয়া প্রমুখ।

স্মারকলিপি সূত্রে জানা যায়, বেতসুন্দি ফকিরোগাঁও গ্রামের উত্তরাংশে, ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের পাশে, শতবছরের ঐতিহ্যে লালিত ৩৬০ আউলিয়ার অন্যতম সফর সঙ্গী হযরত শাহ আব্দুর রহিম (রহ:) মাজার অবস্থিত। এ গ্রামবাসীর সম্মিলিত সহযোগিতার মাধ্যমে সুদীর্ঘ দিন ধরে মাজারটি ঐতিহ্য রক্ষার পাশাপাশি মাজারের নিয়মিত কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছেন গ্রামবাসী ও মাজার পরিচালনা কমিটি। মাজারের প্রতিষ্ঠালগ্ন খাদিম মরহুম ফকির সুরুজ আলী গংদের সাথে গ্রামবাসী ঐক্যবদ্ধভাবে প্রতি বছর এখানকার বার্ষিক ওয়াজ মাহফিল, শিরনী বিতরণ সহ নানাবিধ ইসলামী কার্যক্রম গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করে থাকেন। ইতিমধ্যে মাজার পরিচালনা কমিটি এবং গ্রামবাসীর মাধ্যমে মাজারের নামে একটি মাদরাসা প্রতিষ্ঠার জন্য ভূমি ক্রয়, মাজারের রাস্তার ভূমি ক্রয়, মাজারের সৌন্দর্যবর্ধন, মহিলা ইবাদত খানা, মাজার গেইট নির্মাণ, মাজার প্রবেশ পথের রাস্তার সৌন্দর্য বৃদ্ধিকরণ সহ বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কার্যক্রম বাস্তবায়ন করা হয়েছে।

গ্রামবাসী কর্তৃক ৩ বছর পরপর মাজার পরিচালনা কমিটি গঠনের মাধ্যমে এর নিয়মিত কাযক্রম পরিচালিত হয়। গত ২০১৫ সালে গঠিত কমিটির সভাপতি মোঃ আলকাছ আলী, সেক্রেটারী ফয়জুল ইসলাম ও কোষাধ্যক্ষ মুশাহিদ আলী রনি সহ ১১ সদস্যের মাজার পরিচালনা কমিটি উপরে উল্লেখিত উন্নয়ন কার্যক্রম বাস্তবায়ন করে। উক্ত কমিটির মেয়াদ গত অক্টোবরে শেষ হলেও উপদেষ্টা পরিষদ পুনরায় তাদেরকে আরো ২ মাসের জন্য বর্ধিত করেন। মাজারের ধারাবাহিক কার্যক্রম সুচারুভাবে পরিচালিত হয়ে আসলেও গ্রামের জনৈক ব্যক্তি তা মেনে নিতে পারেননি। তিনি হিংসার বশবতী হয়ে ব্যক্তি বিশেষের ইশরায় মাজারের ঐতিহ্য ও সুনাম বিনষ্ট করার লক্ষ্যে বিভিন্ন ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছেন।

এরই ধারাবাহিকতায় চলতি মাসের ১১ ডিসেম্বর ফকিরোগাঁও গ্রামের মৃত উম্মর আলীর ছেলে মোহাম্মদ আলী গ্রামবাসীর নাম ব্যবহার করে মাজার পরিচালনা কমিটির, বিশেষ করে সেক্রেটারী ফয়জুল ইসলাম ও কোষাধ্যক্ষ মুশাহিদ আলী রনিকে জড়িয়ে কতিপয় মিথ্যা বানোয়াট তথ্য দিয়ে জেলা প্রশাসক সিলেট বরাবরে একটি দরখাস্ত জমা দিয়েছেন। এ খবরে মাজার পরিচালনা কমিটি সহ গ্রামবাসীর মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। তারা তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে তৎক্ষণাত গ্রামের বেলাল আহমদ সহ কয়েকজন এর সাথে জড়িত রয়েছেন বলে উপস্থিত সকলকে জানায়।

পরে গত সোমবার রাতে গ্রামবাসী এক প্রতিবাদ সভার আয়োজন করে এবং এরকম মিথ্যা, বিভ্রান্তিকর তথ্য সরবরাহ ও সংবাদ প্রকাশের তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন করেন। এ সময় গ্রামবাসী পবিত্র স্থান হযরত শাহ আব্দুর রহিম (রহ:) মাজার নিয়ে ষড়যন্ত্রকারীদের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ থাকার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

প্রখ্যাত ইসলামী ব্যক্তিত্ব মাওলানা শাহ ফারুক আহমদের দিক নির্দেশনায় প্রতিষ্ঠিত এ মাজারের পরিচালনা কমিটি ভাউচারের মাধ্যমে স্বচ্ছতার সাথে সবধরনের কার্যক্রম পরিচালনা হয়। যা গ্রামবাসী সহ এলাকার জনসাধারণ অবগত রয়েছেন। বর্তমান মাজার কমিটিতে গ্রামের বিশ^স্থ ব্যক্তিদের সমন্বয়ে গঠিত করা হয়েছে। এতে কোন চিহ্নিত অপরাধী কিংবা স্বার্থান্বেষী ব্যক্তিকে জড়িত করা হয়নি। ফলে গ্রামের গোটা কয়েক অসাধু ব্যক্তি মাজারের গুরুত্বপূর্ণ পদে আসীন না হওয়ায় সাবেক ও বর্তমান কমিটির বিরুদ্ধে মিথ্যা অপবাদ, মিথ্যা মামলার ভয়ভীতি এবং মাজার পরিচালনায় বিশৃঙ্খলার অপচেষ্টা করছে। গ্রামবাসী ও এলাকার সর্বস্তরের জনসাধারণ এসব চিহ্নিত অপরাধী ব্যক্তি সম্পর্কে অবগত রয়েছেন। যারা বিগত দিনে মাজারে বিভিন্ন অনৈসলামিক কার্যক্রম পরিচালনা করেছে। মাজারের বাক্স ভাংচুর, আগত মহিলাদের উত্ত্যক্ত, ওয়াজ মাহফিলে বাধা সৃষ্টি এবং সর্বশেষ ভূমি ক্রয়ে নানা ষড়যন্ত্র করেছে। বর্তমান কমিটি তাদের সে অনৈসলামিক কার্যক্রম করার সুযোগ না দেয়ায় এসব ষড়যন্ত্র করছে।

বর্তমান কমিটির সভাপতি ও কোষাধ্যক্ষের স্বচ্ছতার জন্য গ্রামবাসী পর পর দু’বার তাদের হাতে মাজার পরিচালনা দায়িত্ব প্রদান করেন। যাদের দ্বারা মাজারের ব্যাপক উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। মাজারের ঐতিহ্য ও উন্নয়নে বাধার সৃষ্টি করতে উক্ত মহল বর্তমানে তৎপর হয়ে উঠেছে।

লালাবাজার ইউনিয়নের স্বনামধন্য হযরত শাহ আব্দুর রহিম (রহ:) মাজার এর উন্নয়নের ধারাবাহিকতা, ষড়যন্ত্রকারীদের কবল থেকে মাজার রক্ষা সহ মাজার কমিটি নিয়ে অপপ্রচারকারীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের দাবী জানিয়েছেন হযরত শাহ আব্দুর রহিম (রহ:) মাজার পরিচালনা কমিটি ও বেতসুন্দী ফকিরোগাঁও গ্রামবাসী।
পরে গ্রামবাসী অনুরোপ স্মারকলিপি সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার বরাবরে প্রদান করেন।

Print Friendly, PDF & Email

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
সিলেট বিভাগের সর্বশেষ
সিলেট বিভাগের আলোচিত
ওপরে