৩রা এপ্রিল, ২০২০ ইং ২০শে চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
টাকার অভাবে খাবার কিনতে পারছেন না,প্রতিবেশীদের কাছে... করোনা পরিস্থিতিতে আর্তমানবতার সেবায় এগিয়ে এলেন জসিম... মহিপুরে হতদরিদ্রদের মাঝে কোষ্টগর্ডের খাবার সামগ্রী... বালিয়াডাঙ্গীতে ৩ ঘন্টা নিত্য প্রয়োজনীয় দোকান খোলা... জামালপুরে ১০০ মেগাওয়াট পাওয়ার প্লান্টের ভেতরে বিদ্যুৎ...

সাপাহারে ভাষা শহীদদের স্মরণে ৯৬টি সরকারি বিদ্যালয়ে ২টিতে শহীদ মিনার

  সমকালনিউজ২৪

গোলাপ খন্দকার সাপাহার(নওগাঁ) প্রতিনিধিঃ

নওগাঁর সাপাহার উপজেলার ৯৬টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মধ্যে ৯৪টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে রাষ্ট্র ভাষা ছিনিয়ে আনা ভাষা শহীদদের স্মরণে নেই শহীদ মিনার ।

সরকারিভাবে প্রত্যেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে একুশে ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন করার নির্দেশনা রয়েছে তবে ৬৮ বছর হলো এই ভাষাকে ছিনিয়ে আনা কিন্ত আজ ও সব সরকারি প্রাথমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভাষা শহীদদের স্মরণে বেশির ভাগ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নেই শহীদ মিনার। কোমলমতী শিক্ষার্থীরা এখন থেকে এটাকে স্মরণ না করলে হয়তো ভুলেই যাবে আন্দোলনের মাধ্যমে এই রাষ্ট্র ভাষা বাংলাকে আমরা ছিনিয়ে এনেছি।রাস্তায় অনেক রক্ত ঝরাতে হয়েছে দামাল ছেলেদের। কিন্তু কোমলমতী শিশু শিক্ষার্থীদের জানাতে হবে জানতে হবে এই ইতিহাসকে তাই প্রতিটি বিদ্যালয়ে ১টি করে শহীদ মিনার স্থাপন করার দাবী প্রবীণ ব্যক্তিদের।

কিন্তু বিভিন্ন প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রতি বছর নিজস্ব উদ্যোগে অস্থায়ী শহীদ মিনার তৈরি করা হয় কোন কোন বিদ্যালয়ে এই দিবসটিকে পালনও করে না। এছাড়া যদিও বার্থীদের আসতে বলে এসে হয়ত অস্থায়ী শহীদ মিনার তৈরি করে বা শিক্ষার্থীদের সাথে নিয়ে মাইল মাইল পথ প্রভাত ফেরির জন্য খালি পায়ে হেঁটে নিয়ে যাওয়া হয় ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য মাইল মাইল দূরে।

বৈদ্যপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ছাদেক উদ্দীনের সাথে কথা হলে আমাদের বিদ্যালয়ে কোন শহীদ মিনার নেই আমাদের ফুল দেওয়ার জন্য ৮ কিলোমিটার দূরত্বে সাপাহারে যেতে হয় এই জন্য অনেক কষ্ট হয় তাই প্রতিটি বিদ্যালয়ে স্থায়ীভাবে শহীদ মিনার তৈরি করার জন্য প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার শহিদুল আলমের সাথে কথা হলে তিনি জানান, আমরা বিদ্যালয়ে চিটি দিয়েছি দিবসটি উদযাপন করার জন্য এবং উর্ধ্বতন কতৃপক্ষের কাছে আবেদন করব যাতে করে উপজেলার সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শহীদ মিনার স্থাপন করা হয়।

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
নওগাঁ বিভাগের সর্বশেষ
নওগাঁ বিভাগের আলোচিত
ওপরে