৬ই এপ্রিল, ২০২০ ইং ২৩শে চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
কোটচাঁদপুরে করোনা প্রতিরোধে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের... করোনা ভাইরাস রোধকল্পে নির্দেশনা না মানায় ৫৩ জনকে... রাঙ্গাবালীর মানচিত্রে মৌডুবী নামে যুক্ত হলো একটি নতুন... বরগুনায় সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য ও হোম কোয়ারেন্টাইন না... অবশেষে বিয়ের আগেই মৃ’ত সন্তান প্রসব, দুলাভাই আটক

সালথায় গ্রাম্য দুদলের সংঘর্ষ আহত- ১০

  সমকালনিউজ২৪

বুলবুল, সালথা (ফরিদপুর) ::

ফরিদপুরের সালথা উপজেলার ভাওয়াল ইউনিয়নের ইউসুফদিয়া গ্রামের গ্রাম্য দুদলের সংঘর্ষে কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। বুধবার সকালে ইউসুফদিয়ার ফসলি মাঠে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে প্রায় কয়েক লক্ষ টাকা পিঁয়াজ ক্ষেত নষ্ট হয়।

স্থানীয়রা জানান, ইউসুফদিয়া গ্রামের মাতুব্বর মোঃ এনায়েতের সমর্থকদের সাথে একই গ্রামের সাবেক উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ ওহিদুজ্জামানের সমর্থকদের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে এলাকার আধিপাত্য বিস্তার নিয়ে কোন্দল চলছিল। এরই সুত্র ধরে গতকাল ১৮ ফ্রেরুয়ারী রাত ৮ টা দিকে এনায়েত সমর্থক মোঃ নুর আলম ও লিটনের সাথে সাবেক চেয়ারম্যান ওহিদুজ্জামানের চাচাতো ভাই শাহিন মোল্যার সাথে ইউসুফদিয়া বাজারে কথা কাটাকাটি ও হাতাহাতি হয়। এ খবর দুদলের মধ্যে ছড়িয়ে গেলে দুপক্ষ দুপাশে জমায়েত হয়। পরে সালথা থানার পুলিশ গিয়ে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়।

গতকালের ওই রেশ ধরে আজ বুধবার সকালে উভয় পক্ষ দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র, ঢাল, সড়কি, রামদা, ছেনদা, ইট, পাটকেল নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। প্রায় ২ ঘন্টা ব্যাপি এই সংঘর্ষকালে কালে ইট পাটকেলে উভয় পক্ষের কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়। আহতদের ফরিদপুরের সদর হাসপাতালসহ বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ব্যাপারে মোঃ এনায়েত হোসেন বলেন, ইউসুফদিয়া গ্রামের মোঃ বিলায়েত টুকু আমার দলে মিশায় তাকে ওহিদ চেয়ারম্যানের চাচতো ভাই শাহিন মোল্যা কুটক্তি করে কথা বললে, প্রতিবাদ করেন তারই ছেলে লিটন। এই প্রতিবাদ করাতে তাদের লোকজন আমার সমর্থকদের উপর হামলা চালায়। এরই সুত্র ধরে আজকের সকালে সংঘর্ষ বাধে।

এনায়েতের বক্তব্যের প্রতিবাদ করে সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ওহিদুজ্জামান বলেন, বিএনপির ও জামায়াতের ঘরোয়া লোক এনায়েত ও তার ভাই হেমায়েত হোসেন (হিরন), এখন আওয়ামীলীগের ছত্রছায়ায় এলাকায় ত্রাস সৃষ্টি করছে। ওদরে লোকজন সবসময়ই উগ্র আমার লোকদের দেখলেই বাজে কথা বলে। গতকাল ইউসুফদিয়া বাজারে আমার চাচাতো ভাই শাহিন বসা ছিলো হঠাৎ এনায়েতের লোকজন শাহিনের উপর হামলা করে। খবর পেয়ে আমার লোকজন জমায়েত হয়।

সালথা থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। এলাকা এখন শান্ত রয়েছে, ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

 

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
ফরিদপুর বিভাগের আলোচিত
ওপরে