১৭ই জুলাই, ২০১৯ ইং ২রা শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
প্রধান সাক্ষী ও রিফাতের স্ত্রী মিন্নিকে গ্রেপ্তার... অবশেষে মিন্নি গ্রেপ্তার! (ভিডিও নিউজ) রংপুরের পল্লী নিবাসেই চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন এরশাদ রিফাত শরিফ হত্যা মামলায় প্রধান সাক্ষী পুলিশ হেফাজতে ফরিদগঞ্জের কাঁশারা ছিদ্দিকিয়া দাখিল মাদরাসাটির ভবন না...

সিলেটে সংঘর্ষ, গুলি, গ্রেপ্তার বিভিন্ন কেন্দ্রে এজেন্ট নেই ধানের শীষের

 অনলাইন ডেস্কঃ সমকাল নিউজ ২৪

সিলেটে ভোটগ্রহণ চলাকালে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির নেতাকর্মী-সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সংঘর্ষকালে হান্নান নামে এক যুবলীগ নেতা শর্টগান দিয়ে গুলি করে। ঘটনাস্থল থেকে বিএনপির কয়েকজন নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করে নিয়ে যায় পুলিশ।

ঘটনাস্থল থেকে প্রতিনিধি জানান, সিলেটের খাদিম পাড়ায় আলামিন জামেয়া হাইস্কুল কেন্দ্রে সকাল সাড়ে ১০টায় ধানের শীষের এজেন্টকে জোর করে ভোটকেন্দ্র থেকে বের করে দেয় ছাত্রলীগ ও যুবলীগ। পুনরায় কেন্দ্রে প্রবেশের চেষ্টা করলে সশস্ত্র অবস্থায় ছাত্রলীগ ও যুবলীগ কর্মীরা হামলা চালায় বিএনপি নেতাকর্মীদের ওপর। এ সময় যুবদল নেতা কামাল আহমদ আহত হন। আশপাশে পুলিশ থাকলেও এ সময় তারা নিস্ক্রিয় ভূমিকা পালন করে।

একইভাবে সকাল সাড়ে ৭টার সময় খাদিমপুর পাড়ায় জাহানপুর প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ধানের শীষের এজেন্টকে হুমকি-ধমকি দিয়ে বের করে দেয় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

 

এ বিষয়ে ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সহ সভাপতি মাহবুবুল হক চৌধুরী বলেন, আমাদেরকে কেন্দ্র থেকে বের করে দিলেও আইন শৃঙ্খলা বাহিনী কোনো ধরনের সহযোগিতা করছে না।

এছাড়া মেজরটিলা শাহকোর্ট উচ্চ বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রে সকাল ৮টার দিকে বিএনপি নেতা, ইউপি মেম্বার পাখি মিয়াকে গ্রেপ্তার করে নিয়ে যায় পুলিশ। তখন ওই কেন্দ্রে আতঙ্ক সৃষ্টি হলে বিএনপির নেতাকর্মীরা কেন্দ্র থেকে সরে পড়ে। বিএনপি নেতাদের জানান, পাখি মেম্বারের বিরুদ্ধে কোনো মামলা না থাকলেও আতঙ্ক সৃষ্টি করার জন্য তাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

এদিকে সিলেটের ব্লু বার্ড স্কুলে বিএনপির কোনো এজেন্ট নেই। ছাত্রদল নেতা পারভেজ খান জুয়েল বলেন, গতরাতে দুজন পোলিং এজেন্টকে গ্রেপ্তার করায় ভোটকেন্দ্রে বিএনপির কোনো এজেন্ট দেয়া যাচ্ছে না।

Print Friendly, PDF & Email

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
সিলেট বিভাগের আলোচিত
ওপরে