১৬ই জুলাই, ২০১৯ ইং ১লা শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
ফুলগাজীর সেই বৃদ্ধ উপজেলা চেয়ারম্যান থেকে  ২০কেজী চাউল... মতলব কৃষি ব্যাংকে চুরির ঘটনায় ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন... মায়ের পরকিয়া দেখে ফেলায় শিশুকে জবাই, ৬ মাস পর ইউপি... দুর্গাপুরে বাস ট্রাকের সংঘর্ষে শিক্ষার্থী নিহত ডিবিওয়াইও’র এডুকেশন ট্যুর!

‘হারামজাদী’ বলায় ড. মাহফুজকে যা বললেন পপি।

 অনলাইন ডেস্ক। সমকাল নিউজ ২৪

ঢালিউডের জনপ্রিয় নায়িকা পপির ওপর ক্ষেপেছেন বেসরকারী স্যাটেলাইট টেলিভিশন চ্যানেল এটিএন বাংলা ও এটিএন নিউজের চেয়ারম্যান ড. মাহফুজুর রহমান। ‘পপি একটা হারামজাদী। খুব খারাপ করেছে সে। একদিন এক সিনেমায় (সাহসী যোদ্ধা) তার মেকআপ ঠিক করে দিয়েছিলাম। এটা নিয়ে সে বলেছে আমি নাকি তার মেকআপম্যান। নিউজ হয়েছে। শয়তান মেয়ে কাজটা খারাপ করেছে। এই হারামজাদীকে যেন এটিএনের ত্রি-সীমানায় না দেখি।’

এমনকি তিনি বলেছেন পপিকে তখনই ক্ষমা করবো যখন সে ভিডিওর মধ্যে ক্ষমা চাইবে এবং সেটা টিভিতে দেখানোর পরেই ক্ষমা করবো।

গেল সোমবার সন্ধ্যায় ‘সময় ও অসময়ের গল্প’ সিরিজের নাটকের সংবাদ সম্মেলনে পপি সম্পর্কে হঠাৎ এসব কথা বলেন মাহফুজুর রহমান। এরপরই পপিকে নিয়ে কথা বলার ভিডিওটি সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। পরে এ বিষয়ে গণমাধ্যমে খবরও প্রকাশ করা হয়।

এ বিষয়ে পপির সঙ্গে কথা হলে তিনি বলেন, ‘মাহফুজুর স্যারের শুভ বুদ্ধি উদয় হয়েছে। তিনি অনেক বড় মাপের মানুষ। তবে নারীদের প্রতি তার কোনও সম্মান নেই।

মেকআপ নিয়ে ভাইরাল হওয়া খবর এর বিষয়ে পপি বলেন, ‘আমি সিনেমার শুটিংয়ের জন্য এফডিসিতে মেকআপ করছিলাম। সেই সেটে মাহফুজুর রহমান স্যার এসেছিলেন। তিনি আমার মেকআপ দেখে বলেন ঠিক হয়নি। তখন তিনি নিজেই আমার মেকআপ ঠিক করে দেন। সেখানে অনেক সাংবাদিক ছিলো এবং সেখানে পরিবেশটা উৎসবমুখর ছিলো। অনেক সাংবাদিক সংবাদও প্রকাশ করেছিলেন।

তাহলে হঠাৎ কেনও আপনাকে নিয়ে মাহফুজুর রহমান এমন কথা তুললেন? জানতে চাইলে পপি জানান, আমি জানি না কেনও এমন করলেন স্যার। আমি তো এ বিষয়ে কোনও পত্রিকা কিংবা আমার ফেসবুকে এই ধরণের মেকআপ করার বিষয় নিয়ে বলিনি। আমি জানি না, আমার দোষটা কোথায়? তবে ওনি বলেছেন আমি তার কাছে ক্ষমা চেয়েছি। এটা ভুল কথা।

তবে পপি দাবী করছেন মাহফুজুর রহমানের কাছে মাফ চাননি তিনি। অপরাধ করলেই কেবল মাফ চায় মানুষ। অকারণে কেউ কারও কাছে মাফ চায় না বলে পপি বলেন।

Print Friendly, PDF & Email

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
ওপরে