১০ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং ২৫শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
বরগুনা সরকারি কলেজে সন্ত্রাসী হামলা নবীগঞ্জে থানা পুলিশের বিশেষ অভিযান চালিয়ে পৃথক... ইসলামপুরে ট্রাক্টরের চাপায় শিশুর মৃ’ত্যু সিলেটে আন্তর্জাতিক দুর্নীতিবিরোধী দিবস পালিত দুর্নীতি... বরগুনায় আন্তর্জাতিক দুর্নীতি বিরোধী দিবস উপলক্ষে তথ্য...

১১ আগস্ট রোবার চাঁদপুরের ৪০টি গ্রামে ঈদুল আজহা পালিত হচ্ছে

 কাজী নজরুল ইসলাম,চাঁদপুর, সমকালনিউজ২৪

আগামীকাল ১২ আগস্ট সোমবার সারাদেশে পবিত্র ঈদুল আজহা পালিত হওয়ার কথা থাকলেও একদিন আগেই চাঁদপুরের ৪০ টি গ্রামে পালিত হচ্ছে মুসলমানদের পবিত্র এই ধর্মীয় উৎসব। সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে এসব গ্রামের বাসিন্দারা এই উৎসব পালন করছেন। এই উৎসবে শামিল হওয়ারা বিভিন্ন পীরের অনুসারী। পীরের নির্দেশেই দীর্ঘ দিন ধরে এই উৎসবে পালন করে আসছেন তারা।চাঁদপুরের ৪০ গ্রামের বাসিন্দারা হাজীগঞ্জ উপজেলার সাদ্রা দরবার শরীফের অনুসারী। এই দরবারের বর্তমান পীর মাওলানা আবু জোফার আব্দুল হাই জানান, এই দরবারের প্রতিষ্ঠাতা পীর মাওলানা ইসহাক একদিন আগে ধর্মীয় উৎসব পালনের রেওয়াজ চালু করেন।১১ আগস্ট রোববার ঈদ উদযাপিত হওয়া চাঁদপুরের গ্রামগুলোর মধ্যে রয়েছে হাজীগঞ্জ উপজেলার বলাখাল, শ্রীপুর, মনিহার, বরকুল, অলীপুর, বেলচোঁ, রাজারগাঁও, জাকনি, কালচোঁ, মেনাপুর, ফরিদগঞ্জ উপজেলার শাচনমেঘ, খিলা, উভারামপুর, পাইকপাড়া, বিঘা, উটতলী, বালিথুবা, শোল্টা, রূপসা, বাশারা, গোয়ালভাওর, কড়ইতলী, নয়ারহাট, মতলবের মহনপুর, এখলাসপুর, দশানী, নায়েরগাঁও, বেলতলীসহ কচুয়া ও শাহরাস্তির বেশ কয়েকটি গ্রাম।জানা গেছে, ১৯২৮ সালে হাজীগঞ্জ রামচন্দ্রপুর মাদ্রাসার তৎকালীন অধ্যক্ষ মাওলানা মোহাম্মদ ইসহাক আরব দেশগুলোর সঙ্গে মিল রেখে ঈদ উদযাপনের উদ্যোগ নেন। কিন্তু স্থানীয়দের অসহযোগিতার মুখে তা ভেস্তে যায়। সরকারি নিয়মের বাইরে গিয়ে একদিন আগে ঈদ পালনের উদ্যোগ নেওয়ায় অধ্যক্ষের দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয় তাকে। ওই বছরই নিজ গ্রাম সাদ্রায় ফিরে আসেন তিনি।

ধনী ও প্রভাবশালী পরিবারের সন্তান মাওলানা ইসহাক ওই বছরই নিজ গ্রামে ফিরে একই উদ্যোগ নিয়ে গণসংযোগ শুরু করেন। গ্রামের অসহায় ও দুঃস্থদের আর্থিক সাহায্য দিয়ে সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে ঈদসহ সব ধরনের ধর্মীয় অনুষ্ঠান উদযাপন প্রথা চালু করেন। পরে তিনি দরবার শরীফ ও মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠা করেন।

মতলব উত্তর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মিজানুর রহমান বলেন, প্রতি বছরের ন্যায় এবারও মতলব উত্তরের বেশ কয়েকটি গ্রামে একদিন আগেই ঈদুল আজহা উদযাপিত হচ্ছে। শান্তিপুর্ণ পরিবেশে ঈদ উদযাপনে আমাদের পুলিশ প্রসাশন কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে।

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
চাঁদপুর বিভাগের সর্বশেষ
চাঁদপুর বিভাগের আলোচিত
ওপরে