৭ই জুন, ২০২০ ইং ২৪শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

samakalnew24
samakalnew24
শিরোনাম:
সৌদি আরবে আজ একদিনে রেকর্ড সর্বোচ্চ ৩৪ জনের মৃত্যু, নতুন... জাতিসংঘের এওয়ার্ড পেলো ভূমি মন্ত্রণালয়! ঢাকায় শতভাগ লকডাউন জারি – রেড জোন এলাকায় বাড়ি থেকে বের... চলতি মাসেই পোশাক শ্রমিক ছাঁটাই হবে : রুবানা হক বগুড়ায় সাংবাদিক অধ্যাপক মোজাম্মেল হকে’র মৃ’ত্যু

৬০ লাখ টাকা ফেরত চাওয়ায় মন্ত্রীর গানম্যান কিশোরের বিরুদ্ধে মহিম ও শহিদকে পরিকল্পিতভাবে গু’লি হ’ত্যার অভিযোগ ।

  সমকালনিউজ২৪

মোহাম্মদ মোজাম্মেল হক, স্টাফ রিপোর্টার:-
সিসার কারখানা তৈরী এবং লাইসেন্স করে দেওয়ার জন্য মহিম ও তার পরিবারের নিকট থেকে ৬০ লাখ টাকা ঘুষ নিয়েছিলেন মন্ত্রীর গান ম্যান এএসআই কিশোর কুমার। ঘুষের এই ৬০ লাখ টাকার দ্বন্ধেই মহিম ও শহিদকে পরিকল্পিত ভাবে গুলি করে নির্মম ভাবে হ’ত্যা করে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী ও গাজীপুর-১ আসনের সাংসদ আ ক ম মোজাম্মেল হকের গানম্যান ঘাতক এএসআই কিশোর কুমার। ঘাতকের গু’লিতে নি’হত মহিম ও শহিদের পরিবার আজ বৃহস্পতিবার এই প্রতিনিধির কাছে অভিযোগ তুলে ধরেন। নিহত মহিম ও শহিদের পরিবারের স্বজনদের বুক ফাঁটা কান্নায় এখনও বাতাস ভারি হয়ে আসছে। পরিবারের একমাত্র ব্যক্তিকে হারিয়ে দুটি পরিবারর অনাহারে অর্ধাহারে দিন যাপন করছেন। মামলার ২২ দিনেও কোন অগ্রগতি না হওয়ায় ন্যায় বিচার নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছে।

টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার আজগানা ইউনিয়নের আজগানা এবং ডাবলাপাড়া গ্রামে শহিদ ও মহিমের বাড়ি।

মির্জাপুর ও কালিয়াকৈর উপজেলার সীমান্তবর্তী কুতুবদিয়া এলাকায় গত (১৬ এপ্রিল) রাতে এ গু’লি করে হ’ত্যার ঘটনা ঘটে।

মন্ত্রীর গানম্যান এএসআই কিশোর কুমারের বাড়ি কালিয়াকৈর উপজেলার কুতুবদিয়া গ্রামে। পিতার নাম নারায়ন চন্দ্র। র‌্যাব, ডিবি ও পুলিশ যৌথ অভিযান চালিয়ে গত ১৭ এপ্রিল আশুলিয়া থানার শিমুলিয়া থেকে কিশোরকে গ্রেফতার করে।

ওসি (তদন্ত) মো. ছানোয়ার জাহান জানিয়েছেন কিশোর কুমারের নামে পুলিশের পক্ষ থেকে একটি অস্র মামলা এবং নিহত শহিদের স্ত্রী মনোয়ারা বেগম একটি হত্যা মামলা করেছেন। মহিমের পরিবারর মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

শনিবার গু’লিতে নি’হত মহিমের স্ত্রী পারভীন বেগম ও ভাই আব্দুর রহিম অভিযোগ করেন, ঘাতক এএসআই কিশোর কুমার তাদের সিসার কারখানা তৈরী ও এর লাইসেন্স করে দেওয়ার কথা বলে ৬০ লাখ টাকা নিয়েছিল। টাকা নিয়ে সিসার কারখানা করে দেয়নি এবং কোন লাইসেন্সও দেয়নি। বিপুল অংকের টাকা দেওয়ায় পরিবারটি এখন নিঃস্ব ও ঋনে জর্জরিত বলে অভিযোগ করেন। কিশোরের কাছে টাকা ফেরত চাওয়ায় মহিমের মধ্যে দ্বন্ধ শুরু হয়। এই টাকার জন্য এএসআই কিশোর পরিকল্পিত ভাবে গুলিতে নির্মম ভাবে হত্যা করে মহিম ও তার বন্ধু শহিদকে। দুই কন্যা মুনালিসা ও আলিফাকে নিয়ে চরম বিপাকে পরেছেন মহিমের স্ত্রী পারভীন বেগম বলে অভিযোগ করেন। একই ভাবে গুলিতে নিহত শহিদের স্ত্রী মনোয়ারা বেগম ও বৃদ্ধা মা মাজেদা বেগম অভিযোগ করেন, বন্ধু হিসেবে মহিমের সঙ্গে গিয়েছিল শহিদ। ঘাতক তাকেও হ’ত্যা করেছে। পরিবারের একমাত্র উপার্জনশীল শহিদকে হারিয়ে কন্যা সুবর্নাকে নিয়ে অসহায় ও নিঃস্ব হয়ে পরেছেন। মহিম ও শহিদের পরিবার মন্ত্রীর গান ম্যান ঘাতক এএসআই কিশোর কুমারের ফাঁসির দাবী জানিয়েছেন।

এদিকে এলাকাবাসি অভিযোগ করেন, মন্ত্রীর গানম্যান হওয়ায় কিশোর কুমারের একক আধিপত্ত ছিল পুরো এলাকায়। মন্ত্রীর প্রভাব খাটিয়ে বিভিন্ন লোকজনকে চাকুরী দেওয়ার নামেও লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। তার বিরুদ্ধে কেউ কথা বলার সাহস পেত না। মহিম পাওনা দারের ৬০ লাখ টাকার জন্যই গত ১৬ এপ্রিল রাতে কুতুবদিয়া এলাকায় তাদের পরিকল্পিতভাবে ঢেকে এনে কিশোর কুমার পিস্তল দিয়ে মহিমকে লক্ষ করে এলোপাথারি গু’লি করে। গু’লিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই মা’রা যান শহিদ। আহত মহিমকে উদ্ধার করে সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে গত ২৪ এপ্রিল মহিমও মারা যায়। কিশোর পুলিশের হাতে গ্রেফতার হওয়ার পর মুল ঘটনা আড়াল করার জন্য বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছেন বলেও দুই পরিবার থেকে অভিযোগ করা হয়েছে।

কালিয়াকৈর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর হোসেন মজুমদার সাংবাদিকদের বলেন, নিহত শহিদের স্ত্রী মনোয়ারা বেগম বাদী হয়ে হ’ত্যা মামলা ও পুলিশের পক্ষ থেকে একটি অস্র মামলা মামলা হয়েছে। নি’হত মহিমের স্ত্রী পারভীন বেগম আরও একটি হ’ত্যা মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে। গানম্যান কিশোরকে পিস্তল ও গু’লিসহ গ্রে’ফতার হয়ে বর্তমানে জেল হাজতে রয়েছে। রিমান্ড চেয়ে আদালতে আবেদন করা হয়েছে। আদালত না বসায় তার রিমান্ড মঞ্জুর হয়নি।

প্রতিদিনের খবর পড়ুন আপনার ইমেইল থেকে
ওপরে